বাংলাদেশ ব্যাংক এর মাননীয় গভর্নর ডঃ আতিউর রহমান ১৭ ডিসেম্বর ২০১৫, বৃহস্পতিবার, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এনআরবিসি ব্যাংকের ‘এজেন্ট ব্যাংকিং’ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহাপরিচালক, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও প্রকল্প পরিচালক এটুআই প্রোগ্রাম, জনাব কবির বিন আনোয়ার। অনুষ্ঠানটিতে সভাপতিত্ব করেন এনআরবিসি ব্যাংক -এর চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ফরাছত আলী। উপস্থিত ছিলেন ব্যাংক -এর ভাইস চেয়ারম্যান ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী, জনাব আবু বকর চৌধুরী ও নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আদনান ইমাম,এফসিসিএ, অডিট কমিটির চেয়ারম্যান জনাব রফিকুল ইসলাম মিয়া আরজু, রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটি’র চেয়ারম্যান জনাব মোহাম্মদ শহীদ ইসলাম এবং পরিচালনা পর্ষদের সম্মানিত সদস্যবৃন্দ।

আরও উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব দেওয়ান মুজিবুর রহমান, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ শোয়েব আহমেদ,বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক জনাব আ ফ ম আসাদুজ্জামান ও এনআরবিসি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সকল বিভাগীয় প্রধান ও শাখা ব্যবস্থাপকবৃন্দ।

ব্যাংক -এর চেয়ারম্যান তার বক্তৃতায় বলেন, মাননীয় গভর্নর, আপনার নেতৃত্বে আমাদের ব্যাংক আজকে মধ্যবিত্তের সঞ্চয় আর গরীবের ভরসার জায়গা করে নিয়েছে।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক মহোদয় তার স্বাগত বক্তৃতায় বলেন বাংলাদেশের ৪র্থ প্রজন্মের ব্যাংক হিসাবে আমরা ২০১৩ সালের ১৮ই এপ্রিল থেকে আমাদের কার্যক্রম শুরু করেছি। ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরুর পর থেকেই আমরা Agent Banking চালু করার জন্য প্রস্তুতিমূলক কাজ শুরম্ন করি এবং আমাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে অন্যান্য ব্যাংকের সাথে Agent Banking কার্যক্রম পরিচালনের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক আমাদেরকে অনুমোদন প্রদান করেন। আমাদের Agent Banking-এর আওতায় গ্রাহকগণ (১) হিসাব খোলা (২) নগদ টাকা জমা ও উত্তোলন করা (৩) Clearing চেক Collection করা (৪) হিসাবের ইধষধহপব জানা (৫) Fund Transfer (৬) IFR সহ সকল প্রকার Remittance গ্রহন ও প্রেরণ করা (৭) Utility বিল জমা করা (৮) কৃষি ও ক্ষুদ্র ঋনের আবেদন করা (৯) Debit এবং Credit কার্ডের আবেদন জমা করা (১০) Internet ও SMS Banking এর আবেদন করা সহ BEFTN-এর মাধ্যমে Fund Transfer সেবা গ্রহন করতে পারবেন। আমাদের Agent Banking গ্রাহক এবং শাখার গ্রাহকের মধ্যে কোন প্রকার পার্থক্য থাকবে না।